ফ্রান্সের পরমাণু সাবমেরিনের আগুন নিভল ১৪ ঘণ্টার চেষ্টায় ।বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় একজন জন আহত হয়েছেন তবে সাবমেরিনের কোন পরমাণু পদার্থ বা অস্ত্র থেকে তিনি আহত হননি। কী কারণে এই সাবমেরিনে আগুন লেগেছে তা এখনো পরিষ্কার নয়। ১৯৯০ সালে ফ্রান্স এই পরমাণু শক্তিচালিত সাবমেরিনটি চালু করে এবং ১৯৯৩ সালে সক্রিয়ভাবে নৌবাহিনীতে যুক্ত হয়।

ভূমধ্যসাগরের তুলোন বন্দরে অবস্থানরত ফ্রান্সের একটি পরমাণু শক্তিচালিত সাবমেরিনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ বন্দরটি হচ্ছে ফ্রান্সের নৌ বাহিনীর জন্য সবচেয়ে বড় ঘাঁটি। দমকল কর্মীদের ১৪ ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে বলে দাবি করেছে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষ দাবি করছে, সাবমরিনের আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। আগুন নেভানোর জন্য কয়েক ডজন দমকল কর্মী কাজ করে এবং আগুন নেভানোর জন্য মারসেলি থেকে একটি জাহাজ মোতায়েন করা হয়। সাবমেরিনটি মেরামতের জন্য বন্দরে নোঙ্গর করা ছিল।

ভূমধ্যসাগরে অবস্থিত নৌঘাঁটির একজন মুখপাত্র বলেছেন, এরইমধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে এবং আগুন আর ছড়িয়ে পড়ছে না তবে এখনো পরিপূর্ণভাবে নিভে যায়নি।

সূত্র- এবিসি, পার্সটুডে।