mission71

পুষ্টিগুণে ভরপুর এবং সহজেই হজম হওয়ার জন্য স্যুপ হলো আদর্শ খাবার। হালকা শীতে ধোঁয়া ওঠা হালকা গরম স্যুপ অনেকের পছন্দ। ঠান্ডা-কাশি কিংবা গলা ব্যথায় তরল এই খাবার অনেকটা উপশমও করে বটে। যারা ডায়েট করেন তাদের জন্য ডিনারে স্যুপের বিকল্প আর কিছু হতেই পারেনা। ডিনারে রুটি বা ভাত হজম হতে যতটা সময় নেয় স্যুপ সেই তুলনায় সহসাই হজম হয়। আবার পুষ্টির বেলায় ষোলআনাই দিয়ে থাকে স্যুপ যা ভাত বা রুটির বেলায় পাওয়া যায় না।

আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করব চিংড়ি এবং ভেজিটেবল দিয়ে স্যুপ তৈরির রেসিপি। স্বাদে অতুলনীয় এই স্যুপের নাম মিক্সড স্যুপ। এটি তৈরি করতে যেমন খুব কম সময় লাগে, তেমনি স্বাস্থ্য উপকারিতাও নজর দেওয়ার মতো। বিকেলের নাস্তা কিংবা সন্ধ্যার অবসরে গরম গরম ধোঁয়া ওঠা স্যুপ উপভোগ করতে পারেন আপনিও।

মিক্সড স্যুপ তৈরিতে যা যা লাগবে:
চিংড়ি

ম্যাকারনি

লবণ

টমেটো কেচাপ

চিলি সস

সয়াসস

গোল মরিচ গুঁড়া

মাশরুম

পেঁয়াজ

গাজর

কেপসিকাম

বাটার

তৈরি করবেন যেভাবে:
একটি পাত্রে চিংড়ি, এক চা চামচ পরিমাণ সয়াসস, দুই টে. চামচ পরিমাণ টমেটো কেচাপ, স্বাদ মতো লবণ, আধা চা চামচ গোল মরিচ গুঁড়া নিয়ে নিন। এবার সব উপকরণগুলো মাখিয়ে ১০ মিনিটের জন্য মেরিনেটে রেখে দিন। এবারে একটি হাড়িতে স্যুপের জন্য পরিমাণ মত পানি ও সাথে দুটি আস্ত কাঁচা মরিচ দিয়ে দিন। পানি ফুঁটে উঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

পানি ফুটতে শুরু করলে এতে মেরিনেট করা চিংড়ি দিয়ে দিন। চিংড়ি সিদ্ধ হওয়ার জন্য দুই থেকে তিন মিনিট রান্না করে নিন। চিংড়ি সিদ্ধ হয়ে গেলে এতে মাশরুম ও গাজর দিয়ে দিন। এবার দুই তিন মিনিট জ্বাল করে সিদ্ধ ম্যাকারনি এবং ক্যাপসিকাম দিয়ে দিন। আবারও ফুটে উঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

স্যুপ ফুটতে শুরু করলে দিয়ে দিন কুচি করা পেঁয়াজ ও এক ফালি লেবুর রস। সাথে লেবুর খোসাটাও স্যুপের মধ্যে দিয়ে দিতে পারেন। লেবুর খোসা থেকে সুন্দর একটা ঘ্রাণ আসে। তবে লেবুর খোসা দিয়ে বেশিক্ষণ জ্বাল করা যাবে না। এক মিনিট পর স্যুপ থেকে লেবুর খোসাটা তুলে নিবেন।

ব্যাস, তৈরি হয়ে গেলো দারুণ সুস্বাদু এবং স্বাস্থ্যকর খাবার মিক্সড স্যুপ। পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ এমন স্যুপ দেহমনকে যেমন করে তুলবে শক্তিশালী তেমনি চনমনে।