mission71

সৌদি আরবের নাজরান বিমানবন্দর ও কিং খালিদ বিমানঘাঁটিতে আবারো ড্রোন হামলা চালিয়েছে ইয়েমেনের হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলন সমর্থিত সামরিক বাহিনী।

সোমবার ইয়েমেনের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিয়া সারিয়ি টুইটারে দেয়া সিরিজ পোস্টে এ কথা জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, নাজরান বিমানবন্দরের সামরিক স্থাপনা এবং কিং খালিদ বিমানঘাঁটিতে ইয়েমেনের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি চারটি কাসেফ টু-কে ড্রোন হামলা চালায়। এছাড়া দুটি বাদর ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করা হয়। হামলা অত্যন্ত নিখুতভাবে সম্পন্ন হয়েছে।
ইয়েমেনি সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র জোর দিয়ে বলেন, সৌদি আরব এবং তার মিত্ররা দারিদ্র্যপীড়িত ইয়েমেনের বিরুদ্ধে যে সামরিক আগ্রাসন এবং সর্বাত্মক অবরোধ অব্যাহত রেখেছে তার জবাবে ইয়েমেনে সামরিক বাহিনী এই হামলা চালালো।

ইয়েমেনের সাবেক প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মানসুর হাদিকে ক্ষমতায় পুনর্বহাল এবং হুথি আন্দোলনকে নির্মূল করার লক্ষ্য নিয়ে সৌদি আরব এবং তার কয়েকটি মিত্র আরব দেশ ইয়েমেনের ওপর এই বর্বর আগ্রাসন চালায়। কিন্তু আজ পর্যন্ত সৌদি জোট তাদের কোনো লক্ষ্য অর্জন করতে পারেনি বরং ইয়েমেনের হুথি আন্দোলন ও সমর্থিত সামরিক বাহিনী দিন দিন শক্তিশালী হয়ে উঠেছে এবং এখন সৌদি আরবের উপর প্রচণ্ড সামরিক চাপ সৃষ্টি করেছে।

সূত্র: পার্সটুডে।