mission71

করোনা মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্থদের সহযোগিতার লক্ষ্যে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে দাতব্য সংস্থা ‘লাইটহাউজ’কে অনুদান দিয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। সিডনিস্থ ল্যাকেম্বায় আনুষ্ঠানিকভাবে অনুদান হিসেবে বিভিন্ন দ্রব্য-সামগ্রী হস্তান্তর করা হয়।

অনুদান সামগ্রী হস্তান্তরের সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ওয়াটসনের ফেডারেল মেম্বার টনি বার্ক এমপি। এছাড়া আওয়ামী লীগের সিডনি ও লাইটহাউসের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুদান হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে টনি বার্ক বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও লাইটহাউস’র এই মানবিক সহযোগিতার উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই। সেই সঙ্গে বাংলাদেশি কমিউনিটির মানুষের সর্বাঙ্গীন মঙ্গল কামনা করছি।
এসময় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি ড. সিরাজুল হক বলেন, সিডনি আওয়ামী লীগ সব সময় বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে নানাবিধ সমাজসেবামূলক কাজ করে আসছে। এ জন্য তাদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই এবং দাতব্য সংস্থা লাইটহাউজ’র নিরন্তর মানবসেবা সত্যি প্রশংসার দাবিদার।

সিডনি আওয়ামী লীগের সভাপতি গাউসুল আলম শাহজাদা বাংলাদেশ থেকে অনুষ্ঠানের সার্বিক নির্দেশিকা প্রদান ও সাফল্য কামনা করেন।

সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আজাদ বলেন, আমরা করোনা সংক্রমনের শুরু থেকেই চেষ্টা করে আসছি ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য কিছু করার। আজকের এই উপহার সামগ্রী অনুদান তারই ধারাবাহিক প্রচেষ্টা। তবে লাইটহাউজ আমাদের অনুদান গ্রহণ করায় কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

উপহার সামগ্রী ও সার্বিক তত্ত্বাবধানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক কাউন্সিলর ও কমিউনিটির নিবেদিত ব্যক্তি মোহাম্মদ শাহে জামান টিটু সহ কাউন্সিলর বিলাল আল হায়েক এবং ক্যাম্পসি এলাকার পুলিশ ইন কমান্ড ডিটেকটিভ ইন্সপেক্টর অ্যান্ড্রু ম্যাকায় ও অন্যান্য পুলিশ সদস্যবৃন্দ ।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি আলতাফ হোসেন লাল্টু, মিল্টন আহমেদ ও তারিকুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. জাহিদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. তারেকুর ইসলাম, আইজীদ আরাফাত,কোষাধ্যক্ষ আবদুস সালাম ও সদস্য কাজী আদনান মোস্তফা সহ প্রমুখ। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউনাইটেড ওয়ার্কারের কর্মী রিজওয়ান চৌধুরী ও ধানসিঁড়ি রেস্টুরেন্টের সত্ত্বাধিকারী মো: জামাল আহমেদ।

অনুদান হস্তান্তর অনুষ্ঠানের আয়োজনে সহযোগিতা করেছেন মাহফুজ আহমেদ ও ফকরুল রিয়া।