ভেড়ার মডেল কসাইখানা, বরেন্দ্র ল্যাম্ব মিট বিক্রয়, বিক্রিত ভেড়ার অর্থ ও নতুন খামারিদের মাঝে ভেড়া বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভেটেরিনারি ক্লিনিক, এ. আই অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টার, নারিকেলবাড়ীয়া ক্যাম্পাস, ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগ, রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ও উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থেকে এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।প্রকল্পের কো-ইনভেস্টিগেটর ও রাবির ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগের চীফ ডেপুটি ভেটেরিনারি অফিসার ড. হেমায়েতুল ইসলাম আরিফ, প্রকল্পের কো-অর্ডিনেটর ও বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আবুল হাশেম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জান্নাতুল ফেরদৌস, কৃষিবিদ ইসমাইল হক উপস্থিত ছিলেন।

কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশনের (কেজিএফ) অর্থায়নে রাবির ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্সস বিভাগ এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। ভেড়ার মডেল কসাইখানার উদ্বোধন এবং বরেন্দ্র ল্যাম্ব মিট বিক্রয়, বিক্রিত ভেড়ার অর্থ ও নতুন খামারীদের মাঝে ভেড়া বিতরণ করেন মেয়র।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র বলেন, ভেড়ার মাংস ছাগলের মাংসের চেয়ে বেশি নিরাপদ ও পুষ্টিকর। ভেড়ার মাংসে গরু ও ছাগলের মাংসের চেয়ে চর্বি ও কোলেস্টেরল কম এবং আমিষের পরিমাণ বেশি। এছাড়া ভেড়ার মাংস অনেক উপকারী। ভেড়া পালনকারী খামারিদের উৎসাহ প্রদানের মাধ্যমে এটিকে একটি বিশেষ খাত হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা সম্ভব।