mission71

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি, ব্রুনাই (ইউটিবি) ক্যাম্পাসে বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ নামক একটি বইয়ের কর্নার স্থাপন করা হয়েছে। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম আজ সোমবার ব্রুনাই দারুসসালামে বাংলাদেশ হাইকমিশন ও ইউটিবি আয়োজিত এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু-বাংলাদেশ বুক কর্নার উদ্বোধন করেন।

এ সময় ব্রুনাই দারুসসালামে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার নাহিদা রহমান সুমনা, ইউটিবি’র ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. দায়াং হাজাহ জোহরাহ বিনতি হাজী সুলাইমান, কূটনৈতিক কোরের ডিন, আট জন রাষ্ট্রদূত, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি এবং বাংলাদেশী কমিউনিটির সদস্যরা কর্মসূচিতে অংশ নেন।

বঙ্গবন্ধু যে ‘সোনার বাংলার’ স্বপ্ন দেখেছিলেন, যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটিকে সেই সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলতে কিভাবে দেশকে উন্নয়নের পথে নিয়ে যেতে চেয়েছিলেন, তা তুলে ধরেন প্রতিমন্ত্রী।
তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট তার মর্মান্তিক মৃত্যু এবং তার পরবর্তী সময়ে অসংখ্য বিপর্যয় সত্ত্বেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার গতিশীল নেতৃত্বের মাধ্যমে আজ বাংলাদেশকে অন্যতম সম্ভাবনাময় দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন, যা শিগগিরই স্বল্পোন্নত দেশের মর্যাদা থেকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে।

ব্রুনাই দারুসসালামকে বাংলাদেশের একটি বন্ধু রাষ্ট্র হিসেবে অভিহিত করে আলম সেখানে প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিকদের বিনামূল্যে চিকিৎসা ও টিকা প্রদানের জন্য দেশটির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, এসব লোকের জন্য সুলতানের অসামান্য অবদানের জন্য আমরা কৃতজ্ঞ এবং আমরা আশা করি, আসিয়ান চেয়ারম্যান ব্রুনাই রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের জন্য একটি টেকসই সমাধানে কাজ করতে এগিয়ে আসবে।

ইউটিবি ভিসি বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগারে বঙ্গবন্ধু-বাংলাদেশ বুক কর্নার প্রতিষ্ঠা করায় আনন্দ ও সন্তোষ প্রকাশ করেন। এটি মূলত বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের বইয়ের পাশাপাশি বাংলাদেশের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের স্বতন্ত্রতা তুলে ধরার জন্য সাজানো হয়েছে।

সূত্র : বাসস