mission71

কোভিড নাইন্টিনের প্রভাবে নিত্য নতুন সমস্যার মুখে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ, বিপিএল। করোনা নিষেধাজ্ঞার মধ্যে আয়োজন নিয়ে এখনো কোনো প্রশ্ন না উঠলেও ইতোমধ্যে দর্শক না রাখতে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলকে জানিয়ে দিয়েছে সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগ। এ ছাড়া বিদেশ থেকে কোয়ারেন্টাইনসহ নানা ইস্যুতে অপারেটর না পাওয়ায় এবার রাখা যাচ্ছে না ডিআরএস রিভিউ সিস্টেমও।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ, বিপিএল মানেই যেন এক উল্টো উটের পিঠে চলা কোনো আগন্তুক। যার নেই কোনো দিশা, নেই কোনো পথের হদিস। শুধু পথচলার আনন্দে সে চলেছে দিনের পর দিন। যেখানে নেই নিয়মনীতির কোনো তোয়াক্কা। আর এসব কারণে হয়তো ভাগ্যটাও খুব একটা পক্ষে থাকে না এ আয়োজনের।

২০২২ সালে কোনো রকমে একটা আয়োজন সেরে ফেলতে চেয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তাই হয়তো প্রথমেই বাগড়া লাগে ফ্র্যাঞ্চাইজি নির্ধারণে। ড্রাফটের মাত্র ২৪ ঘণ্টা আগে জানা যায়, বাদ পড়ছে একটি দল। কারণ আর্থিক নিয়ম মানেনি তারা। অথচ বারবার নানা ভাবে যাচাই-বাছাইয়ের পরই তাদের হাতে মালিকানা সঁপে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল গভর্নিং কাউন্সিল।

সে ধাক্কা সামাল দিতে না দিতেই আবারো সমালোচনার জন্ম দেয় বিসিবি, ঢাকা ফ্র্যাঞ্চাইজি নিজেদের হাতে রেখে। সেখানে আবার বড় বড় তারকা ক্রিকেটারদের ভিড়িয়ে চমকও দেয় তারা। এরপর মোটামুটি বড় দাগে আর কোনো সমস্যা ছিল না আয়োজন নিয়ে।

 

কিন্তু এটা যে বিপিএল, সমস্যা না থাকলে টুর্নামেন্টের ষোলোকলা পূর্ণ হবে কীভাবে? তাই তো দেখা দিল নতুন সমস্যা করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট। দেশের পর দুনিয়ার চারদিকে এর প্রকোপ বাড়তে থাকায় দেখা দেয় নতুন দুশ্চিন্তা। পিএসএলের পর এসএলসিও ক্রিকেটারদের ছাড়পত্র না দেওয়ার পরও টুর্নামেন্টের ভাগ্যে কিছু তারকা ক্রিকেটার জুটে গিয়েছিল সংগঠকদের মুন্সিয়ানায়। কিন্তু এবার করোনার কাছে জৌলুশ হারাচ্ছে আসরটি।

অপারেটর না পাওয়ায়া এ মুহূর্তে বিপিএলে আনা যাচ্ছে না ডিআরএস রিভিউ সিস্টেম প্রযুক্তি। আর অপারেটর পাওয়া গেলেও কোয়ারেন্টাইনসহ নানা জটিলতায় সেটা আরও বড় সমস্যা হয়ে যায় গভর্নিং কাউন্সিলের সামনে। আধুনিক ক্রিকেটে রিভিউ ছাড়া ম্যাচ এখন অনেকটাই লবন ছাড়া তরকারির মতো কিন্তু কি বা করার আছে। কোভিডের কাছে হার মানতে হচ্ছে ক্রিকেটকে।

এখানেই শেষ নয়। এবার দর্শকদের জন্য রয়েছে আরও বড় দুঃসংবাদ। প্রথমে মাঠের ধারণক্ষমতার ৩০ শতাংশ দর্শক প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে বলে জানানো হয় সরকারের পক্ষ থেকে। তবে সেখানে শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়েছিল বেশ কয়েকটা। এই যেমন থাকতে হবে টিকা কার্ড, এক গ্যালারিতে সব দর্শক থাকবে না। বসতে হবে এক সিট ফাঁকা রেখে ইত্যাদি।

 

কিন্তু এবার আর এতো সব শর্তে যায়নি স্বাস্থ্যবিভাগ। ক্রমবর্ধমান ওমিক্রনের কারণে সোজা সাপ্টা নিষেধাজ্ঞা দিয়ে দিয়েছে বিপিএলের দর্শক প্রবেশে।