কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো জানিয়েছেন, গুপ্তরচরবৃত্তির অভিযোগে চীনে গ্রেফতারের পর কারাগারে থাকা কানাডার দুই নাগরিক মাইকেল স্পাভোর ও মাইকেল কোভরিগ মুক্তির পর বেইজিং ছেড়েছেন।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম বিবিসি জানায়, ট্রুডো জানিয়েছেন, কানাডার স্থানীয় সময় শনিবার তারা নিজ দেশে পৌঁছবেন। বিবিসি জানায়, এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের সমঝোতায় কানাডায় গৃহবন্দী চীনা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা মেং ওয়ানঝুকে তিন বছর পর মুক্তি দেয়া হয়। শুক্রবার আদালতে উপস্থিত হলে তাকে মুক্তির নির্দেশ দেন কানাডার আদালত।

এক সংক্ষিপ্ত সংবাদ সম্মেলনে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, এক অবিশ্বাস্য কঠিন পরীক্ষার মধ্যে ছিলেন তারা। এই ১ হাজার দিন তারা ধৈর্য্য, সাহস, আত্মবিশ্বাস ধরে রেখেছিলেন।

তিনি আরও বলেন, সবার জন্যে ভাল খবর হচ্ছে মাইকেল স্পাভোর ও মাইকেল কোভরিগ চীন ত্যাগ করে তাদের পরিবারের পাশে ফিরে আসছেন। কানাডার ব্যবসায়ী মাইকেল স্পাভোর, সাবেক কূটনীতিক মাইকেল কোভরিগসহ ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে আটক হন।

গুপ্তরচরবৃত্তি এবং বিদেশি রাষ্ট্রের গোপনীয়তার বিধান লঙ্ঘন করায় মাইকেল স্পাভোরকে ১১ বছরের সাজা দেয় চীনের একটি আদালত। একই সঙ্গে ৫০ হাজার ইয়েন মূল্যের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের অনুরোধে কানাডার ভ্যানকুভারে চীনা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের কর্মকর্তা মেং ওয়ানঝুকে কানাডায় আটক করা হয়। তার কয়েক দিনের মাথায় কানাডার এই দুই নাগরিককে চীনে আটক করা হয়।

এই দুই ঘটনা নিয়ে চীন-কানাডার মধ্যে এতদিন চরম কূটনৈতিক টানাপোড়েন দেখেছে বিশ্ব।