mission71

বাংলাদেশের সঙ্গে নেপালের বাণিজ্য ও মানুষের যাতায়াত আরো বাড়াতে চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দর ও রহনপুর রেলওয়ে শুল্ক স্টেশন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মন্তব্য করেছেন রাষ্ট্রদূত ডা. বানশিধর মিশ্র।

সোমবার সোনামসজিদ স্থলবন্দর ও শুল্ক স্টেশন পরিদর্শনকালে পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডের হল রুমে কাস্টমস, আমদানি-রপ্তানিকারকসহ পোর্ট সংশ্লিষ্টদের সাথে মতবিনিময়কালে এ মন্তব্য করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত নেপালের এই রাষ্ট্রদূত।

দুই দিনের চাঁপাইনবাবগঞ্জ সফরে এসে ডা. বানশিধর মিশ্র সকালে সোনামসজিদ স্থলবন্দর ও বিকালে রহনপুর রেলওয়ে শুল্ক স্টেশন পরির্দশন করেন এবং বন্দরর সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে একাধিক বৈঠক করেন। ভারতের মহদিপুর ও সিংগাবাদ বন্দরও ঘুরে দেখেন নেপালের রাষ্ট্রদূত।
এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নেপালের রাষ্ট্রদূত বলেন, নেপালের পূর্ব ও দক্ষিণ অংশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে খুব কাছে। এই দুই দেশের বাণিজ্য এবং মানুষের যাতায়াত কীভাবে আরো বাড়ানো যায় এর সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের জন্য পরিদর্শনে এসেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, ভারতের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে নেপালের বাণিজ্য রয়েছে। সুতরাং নেপাল কেন এই বন্দর ব্যবহার করে ব্যবসা-বাণিজ্য করবে না।

এ সময় রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে ছিলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দীন আহমেদ শিমুল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আতোয়ার রহমান, শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাকিব আল রাব্বী, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক তৌহিদুল আলম টিয়া, নেপালি দূতাবাসের সেক্রেটারি মিসেস রিয়া শেঠি, সেকেন্ড সেক্রেটারি মিষ্টার রঞ্জন যাদবসহ বিভিন্ন পর্যায়ে কর্মকর্তাবৃন্দ।