ফ্রান্সের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক হতে এখনো সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। এসময় তিনি ইরানের সাথে পরমাণু ইস্যু নিয়ে আলোচনার সম্ভাবনা রয়েছে বলেও জানান।

পারমাণবিক শক্তিচালিত সাবমেরিন কিনতে গেল সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের সঙ্গে চুক্তি করে অস্ট্রেলিয়া। যার কারণে কয়েক বছর আগে ফ্রান্সের সঙ্গে করা চার হাজার কোটি মার্কিন ডলারের একটি চুক্তি বাতিল করে ক্যানবেরা।

এ চুক্তি নিয়ে তৈরি হওয়া উত্তেজনা কমাতে বৃহস্পতিবার ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন।

বৈঠকের পর আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ব্লিঙ্কেন বলেন, অস্ট্রেলিয়া ফ্রান্সের চুক্তি বাতিল করার পর বিষয়টি নিয়ে মিত্রদের মধ্যে খোলামেলা আলোচনা প্রয়োজন।

এর আগে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাঁ ইভ লা দ্রিয়া যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ তুলে ধরেন। তবে ব্লিঙ্কেনের পক্ষ থেকে ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতি ব্যক্তিগত শ্রদ্ধা জানানোর কথা বলা হয়।

গেল বুধবার উত্তেজনা নিরসনে ফোনে কথা বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। ফোনালাপের পর দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, আগামী অক্টোবরের শেষের দিকে দুই দেশের প্রেসিডেন্ট দেখা করতে রাজি হয়েছেন।