mission71

হাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে পয়েন্ট টেবিলের দুই শীর্ষ দল ম্যানচেস্টার সিটি ও চেলসি। এতিহাদ স্টেডিয়াম স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে শনিবার (১৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়। আরেক ম্যাচে ম্যানচেস্টার ইউনাটেডের মুখোমুখি হবে অ্যাস্টন ভিলা। বার্মিংহামের ভিলা পার্কে এই ম্যাচটি শুরু হবে রাত সাড়ে ১১টায়।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দুই ফাইনালিস্ট মৌসুমে দ্বিতীয় বারের মতো মুখোমুখি হচ্ছে। প্রথমবার ঘরের মাঠে ১-০ গোলে হেরে গিয়েছিল চেলসি। এবার ম্যানচেস্টার সিটির মাঠে জয় নিয়ে ফিরতে চায় চেলসি। তা নির্ধারণ করতে অবশ্য বেশ বেগ পেতেই হবে। কেননা এই দুই দল এখন অবস্থান করছে পয়েন্ট টেবিলের এক ও দুই নম্বরে।

ম্যানচেস্টার নাকি লন্ডন, শেষ হাসি যেই জায়গার সমর্থকরাই হাসুক। আরও একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচ উপভোগ করতে যাচ্ছে ফুটবল বিশ্ব। তা নিঃসন্দেহে বলা যায়। এটি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে দুই দলের ১৫৬তম লড়াই। এর আগে ১৫৫ দেখায় ৬২ জয় নিয়ে এগিয়ে আছে চেলসি। অবশ্য এবারের প্রিমিয়ার লিগে ১০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের লড়াইয়ে অনেক এগিয়ে সিটিজেনরা।

 

লড়াইটা দুই কোচ পেপ গার্দিওলা ও থমাস টুখেলের মধ্যেও। এতিহাদ স্টেডিয়ামে গেল তিন ম্যাচে গড়ে তিন গোল করেছে সিটিজেনরা। তাই এই ম্যাচে স্কোরিং করতে বহবে লুকাকু-কাই হ্যাভার্টজদের।

কোভিড আক্রান্ত হয়েছিলেন চেলসির অন্যতম দুই ফুটবলার থিয়াগো সিলভা ও এনগোলো কান্তে। তারা সুস্থ্ হয়ে দলে ফেরায় পূর্ণ শক্তির দল পাচ্ছে ব্লুরা। অন্যদিকে, চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটিও আছে বেশ ছন্দে। দলে ফিরেছেন গোলরক্ষক এদারসন। চেলসির বিপক্ষে বরাবরই ভালো ব্রাজিজিলিয়ান গ্যাব্রিয়াল হেসুস। তিনিও থাকছেন একাদশে। তাই হতাশ হতে হবে না দর্শকদের।

এদিকে দিনের আরেক ম্যাচে, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড মুখোমুখি হবে অ্যাস্টন ভিলার। ৩১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলে ৭ নম্বরে আছে রেড ডেভিলরা। অ্যাস্টন ভিলা আছে ১৪ তে। ওল্ড ট্রাফোর্ডে টানা ৬ ম্যাচ অপরাজিত রোনালদোরা। বার্মিং হ্যামে তা বজায় রাখতে চায় সেই ধারাবাহিকতা।

 

সে জন্য অবশ্য ফিট একাদশ পাচ্ছে রালফ র‌্যাগনিক। রোনালদো, ব্রুনো ফার্নানদেজরা আছেন ছন্দে। তবুও সজাগ থাকতেই হচ্ছে। কেননা নিজেদের মাঠে অ্যাস্টন ভিলা সমীহ করার মতোই দল। তাই জয়ের আশা করতেই পারেন স্টিভেন জেরার্ড শিষ্যরা।