mission71

দুধকে বলা হয় সুষম খাবার। এতে রয়েছে প্রোটিন, ফ্যাট, ভিটামিন ডি ও ভিটামিন-১২। আর এ দেখা যাচ্ছে কারণে দৈনিক ২৪০ মিলিলিটার দুধ পান করলে ক্যালসিয়ামের ৩০ শতাংশ চাহিদা পূরণ হয়। তাই দৈনিক খাদ্যতালিকায় দুধ রাখা খুবই জরুরি।

তবে কোনো কিছুই ভালো নয়, অতিরিক্ত পুষ্টি এবং স্বাস্থ্যকর খাবার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। দুধের ক্ষেত্রেও কথাটি সত্য। অতিরিক্ত দুধ পানে স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে।

গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব নারী দৈনিক তিন বা ততোধিক গ্লাস দুধ পান করেন; তাদের হাড়ের ভঙ্গুরতার ঝুঁকি বেড়ে যায়। আর ব্যক্তি দৈনিক তিন গ্লাস দুধ পান করেন তাদের হাড়ের ভঙ্গুরতার ঝুঁকি ১৬ শতাংশ বেড়ে যায়। প্রদাহজনিত রোগে আক্রান্ত হতে পারে শরীর।

দুগ্ধজাত খাবার- গরুর দুধ এবং স্যাচুরেটেড ফ্যাটযুক্ত পনির দেহে প্রদাহ বাড়িয়ে দেয়। এ ছাড়া স্যাচুরেটেড চর্বি ক্ষতিকর কোলেস্টরল এবং হার্টের অসুখের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়।

দৈনিক কতটুকু দুধ পান করা স্বাস্থ্যসম্মত? যারা প্রতিদিন পনির বা দই খান তাদের জন্য দৈনিক প্রায় ২৫০ মিলিলিটার পান করাই যথেষ্ট।