mission71

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ ও পলাশবাড়ী উপজেলার ১৭টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ৪টি আওয়ামী লীগ ও ১৩টি স্বতন্ত্র প্রার্থী বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে। সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ২টি ইইনিয়নের ফলাফল ঘোষণা করা হয়নি। ২৮ নভেম্বর রবিবার দিবাগত রাত একটার দিকে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ হলরুমে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. সেকেন্দার আলী ১৩ ইউনিয়নের মধ্যে ১১টি ইউনিয়নের বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন। উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের মধ্যে ২টিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত, ৩টিতে আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী ও ৬টিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে। নির্বাচিতগণ চেয়ারম্যান হলেন সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আব্দুল জব্বার মিয়া (মোটরসাইকেল), সোনারায় ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সৈয়দ বদিরুল আহসান সেলিম (চশমা), তারাপুর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী আমিনুল ইসলাম (মোটরসাইকেল), বেলকা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইব্রাহিম খলিলুল্যাহ (দুটি পাতা), দহবন্দ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী রেজাউল আলম সরকার রেজা (নৌকা), সর্বানন্দ ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী জহুরুল ইসলাম(মোটরসাইকেল), রামজীবন ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শামছুল হুদা (আনারস), ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোখলেছুর রহমান মন্ডল (ঘোড়া), ছাপড়হাটী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কনক কুমার গোস্বামী (নৌকা), শান্তিরাম ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী এবিএম মিজানুর রহমান খোকন (দুটি পাতা) এবং কাপাসিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মঞ্জু মিয়া (চশমা)। এছাড়াও ফলাফল স্থগিত হওয়া দুই ইউনিয়নের মধ্যে কঞ্চিবাড়ী ইউনিয়নে বিএনপি দলীয় স্বতন্ত্র প্রার্থী মনোয়ার আলম সরকার (আনারস) এবং শ্রীপুর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী আজহারুল ইসলাম মুকুল (আনারস) এগিয়ে আছেন। অপরদিকে রবিবার দিবাগত রাত একটার দিকে পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদ টাউনহলে দায়িত্বপ্রাপ্ত পৃথক তিনজন রিটার্নিং অফিসার উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. শাহীনুর আলম, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মুহা. মাহতাব হোসেন ও উপজেলা প্রাণিস¤পদ কর্মকর্তা ডা. মো. আলতাব হোসেন বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন। উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের মধ্যে ২টিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত, ২টিতে জাতীয় পার্টি ও ২টিতে বিএনপি দলীয় স্বতন্ত্র প্রার্থী চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে। নির্বাচিতরা হলেন পলাশবাড়ী উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী মো. তৌফিকুল আমিন মন্ডল টিটু (লাঙ্গল) ৩ হাজার ৯৩২ ভোট, মহদীপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. তৌহিদুল ইসলাম মন্ডল (নৌকা) ৬ হাজার ৬৪ ভোট, বেতকাপা ইউনিয়নে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী মো. মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তা (লাঙ্গল) ৫ হাজার ৩০৯ ভোট, পবনাপুর ইউনিয়নে বিএনপি দলীয় স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. মাহাবুবুর রহমান মন্ডল (মোটরসাইকেল) ৩ হাজার ৪৬১ ভোট, মনোহরপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. আব্দুল ওহাব প্রধান রিপন (নৌকা) ৬ হাজার ৬২ ভোট, হরিনাথপুর ইউনিয়নে বিএনপি দলীয় স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. কবির হোসাইন জাহাঙ্গীর (ঘোড়া) ৩ হাজার ৬৬১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছে।