mission71

মিশন একাত্তর

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে প্রতিদিন মৃত্যুবরণ করা ব্যক্তিদের তালিকা বড় হচ্ছে।মৃত্যুর সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়েছে। কুমেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও লক্ষণ-উপসর্গ নিয়ে আরও ৪ জন মারা গেছেন। মেডিকেলের করোনা ইউনিটে পজিটিভ ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ২১৪ জন। এদের মধ্যে করোনা পজিটিভ ৭০ জন ও করোনা উপসর্গ ১৪৫ জনের

আজ শনিবার সকালে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী সার্জন ডা. মোয়াজ্জেম এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান, হাসপাতালের আইসিইউতে একজন এবং আইসোলেশন ওয়ার্ডে তিনজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

জেলা সিভিল সার্জন অফিসের সূত্র মতে, কুমিল্লা জেলা এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৮১৪ জন, সুস্থ হয়েছেন দুই হাজার ৭৩৩ জন এবং আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১২৮ জন।

অন্যদিকে হাসপাতাল সূত্র জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় কুমেক হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে চারজন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে আবুল কাশেম (৭৮) নামে একজন করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। আবুল কাশেম কুমিল্লা নগরীর ঠাকুরপাড়া এলাকার বাসিন্দা ছিলেন।

এছাড়া আইসিইউ এবং আইসোলেশন ওয়ার্ডে মারা যান কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার রাধানগর গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমার (৭৫), ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার আবদুর রহমানের ছেলে আবদুর গফুর (৬০) এবং কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ছেলে আবদুল বাতেন (৭৫)।