mission71

মুজিব শতবর্ষে সোনালী ব্যাংক তার গ্রাহকদের জন্য চালু করল ই-ওয়ালেট। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে দেশের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকটির এই ইলেকট্রনিক ওয়ালেট ব্যবহার করে গ্রাহকরা ঘরে বসে দিনরাত ২৪ ঘণ্টা লেনদেন করতে পারবে।

মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) দিবাগত রাত ১২টা ০১ মিনিটে সোনালী ব্যাংকের পরিচালনা পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান সিদ্দিকী এই ই-ওয়ালেট অ্যাপসটি উদ্বোধন করেন।

নতুন চালুকৃত এই ই-ওয়ালেট ব্যবহার করে ব্যাংকের গ্রাহকরা ব্যাংক একাউন্ট থেকে ই-ওয়ালেটে অর্থ আদান প্রদান, অন্য একাউন্টে অর্থ প্রেরণ, সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট থেকে বাংলাদেশের অন্য যে কোন ব্যাংকের একাউন্টে অর্থ প্রেরণ, ব্যাংক স্টেটমেন্ট দেখা, ই-ওয়ালেটের ট্রান্সজেকশন হিস্টোরি দেখা, বিভিন্ন ইউটিলিটি বিল পেমেন্ট, ব্রাঞ্চ এবং এটিএম বুথ লোকেশন জানাসহ আরো বহুবিধ সুবিধা পাবেন।

যে কোন গ্রাহক গুগল প্লে স্টোর/অ্যাপেল অ্যাপ স্টোর থেকে সোনালী ই-ওয়ালেট অ্যাপটি ইনস্টল করা যায়। অ্যাপটি ইনস্টল হয়ে গেলে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এর জন্য রেজিস্ট্রার বাটনে ক্লিক করে নাম, মোবাইল নম্বর, সোনালী ব্যাংক একাউন্ট নম্বর, জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর, ই-মেইল আইডি, জম্ম তারিখ, ৬ সংখ্যার পিন নাম্বার এবং পুনরায় তা কনফার্ম করে সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে। সোনালী ই-ওয়ালেট অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীরা এই সুবিধা পাবেন। এই অ্যাপ চালুর মাধ্যমে ইন্টানেট ব্যাংকিংয়ে আরো একধাপ এগিয়ে গেলো দেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকটি। ক্যাশবিহীন ও ঝুঁকিবিহীন লেনদেনের জন্য এই ই-ওয়ালেট ভূমিকা রাখবে।

নতুন এই অ্যাপসটি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ব্যাংকটির সিইও অ্যান্ড এমডি মো. আতাউর রহমান প্রধান তার বক্তব্যে এই সোনালী ই-ওয়ালেট চালুকে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রীর প্রচেষ্টার অংশ বলে অভিহিত বলেন। এসময় পরিচালনা পরিষদের সদস্যরা, ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টররাসহ অন্যান্য নির্বাহীরা উপস্থিত ছিলেন।